১৫ বছর পর স্বাভাবিক জীবনে ফিরলেন অগ্নিদগ্ধ এক তরুণী


নিজস্ব সংবাদদাতা, হাওড়াঃ 

 ১৫ বছর পর স্বাভাবিক জীবনে ফিরলেন অগ্নিদগ্ধ এক তরুণী।জানাগেছে বছর ১৫ আগে রান্না করার সময় অগ্নিদগ্ধ হয় পূর্ব মেদিনীপুর জেলার এক তরুণী।সেই তরুণীকে বিরল প্লাস্টিক সার্জারির মাধ্যমে স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে আনলেন চিকিৎসক সুদীপ্ত মল্লিক। সোমবার রাতে বাগনানের মার্সি নামে একটি বেসরকারি হাসপাতালে স্কিন গ্রাফটিংয়ের মাধ্যমে ওই তরুণীর গলায় ওল্ড বার্ন কন্ট্রাকচার দূর করে তাঁকে আর পাঁচটা মানুষের মতোই স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে আনা হয়েছে। চিকিৎসক মল্লিক জানান ১৫ বছর আগে অগ্নিদগ্ধ হন তখন তাঁর গলা ও দুই উরুর বেশ কিছুটা অংশ পুড়ে যায়। তিনি স্বাভাবিকভাবে মাথা তুলে দাঁড়াতে পারছিলেন না। এমনকি চামড়া সংকোচনের ফলে তিনি ঘাড় ঘোরানোর ক্ষমতাও হারিয়ে ফেলেছিলেন। সোমবার তাঁর হাটুর নিচ থেকে ছাল নিয়ে গলার পোড়া অংশে অস্ত্রোপচার করে সেখানে ওই ছাল স্থাপন করা হয়। বর্তমানে ওই তরুণী মাথা তুলে দাঁড়ানোর পাশাপাশি দু'দিকেই ঘাড় ঘোরাতে সক্ষম হচ্ছেন বলে তিনি জানিয়েছেন। এই ধরনের অস্ত্রোপচার হাওড়া জেলায় এই প্রথম বলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন।
                            
                                                         চিকিৎসক

AB Banga News-এ খবর বা বিজ্ঞাপন দেওয়ার জন্য যোগাযোগ করুনঃ 9831738670 / 7003693038, অথবা E-mail করুনঃ banganews41@gmail.com