গঙ্গারামপুরে প্লাবিত এলাকায় ত্রাণ সামগ্রী বিলি করল জেলা প্রসাশন


 বাবাই সূত্রধর, দক্ষিণ দিনাজপুর:

পুনর্ভবা নদীর জল বেড়ে যাওয়ায় গঙ্গারামপুর ব্লকের যাদববাটি এলাকার একটি বাঁধ ভেঙে প্লাবিত কয়েকশো বাড়ি। সোমবার পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে ত্রাণ সামগ্রী বিলি করা হল জেলা পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে। এমন বিপদের সময় ত্রাণ পেয়ে খুশি এলাকাবাসী।বিগত কয়েকদিনের টানা বৃষ্টিতে পুনর্ভবা নদী জলস্ফীতি হয়েছে। ফলে নদী তীরবর্তী এলাকাগুলির বসবাসকারী মানুষেরা চরম বিপদসীমায় দাঁড়িয়ে দিন পার করছে । এদিকে হু হু করে ঘন্টার পর ঘন্টা নদীর জল বেড়ে চলেছে। গঙ্গারামপুর থানা এলাকার বহু রাস্তা,মাঠ জলের নিচে গিয়েছে। তেমনি গঙ্গারামপুর থানার পূর্ব যাদববাটি এলাকায় একটি বাঁধ ভেঙে দুরবস্থায় কয়েকশো পরিবার তাদের ঘর বাড়ি ছেড়ে উঁচু স্থানে স্থানান্তরিত হয়েছে। সোমবার জেলা পুলিশের তরফে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার একাধিক জায়গায় পাশাপাশি গঙ্গারামপুরের পূর্ব যাদববাটি এলাকা পরিদর্শন করেন তারা। এদিন মালদা রেঞ্জের ডিআইজি প্রসূন ব্যানার্জি, জেলা পুলিশ সুপার দেবশ্রী দত্ত, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ডাবলু ভুটিয়া, গঙ্গারামপুর মহকুমা পুলিশ আধিকারিক দীপ কুমার দাস, গঙ্গারামপুর থানার আইসি পূর্ণেন্দু কুমার কুন্ডু সহ একাধিক পুলিশকর্মীরা নৌকো করে বিপর্যস্ত এলাকার মানুষদের কাছে পৌঁছে তাদের মনোবল বাড়ানোর পাশাপাশি ত্রাণ সামগ্রী দিয়ে সাহায্য করেন জেলা পুলিশের আধিকারিকরা। এ বিষয়ে মালদা রেঞ্জের ডিআইজি প্রসূন ব্যানার্জি, ও জেলা পুলিশ সুপার দেবশ্রী দত্ত জানিয়েছেন, জেলার বিভিন্ন বন্যা কবলিত এলাকা গুলি পরিদর্শনের পাশাপাশি গঙ্গারামপুর থানার পূর্ব যাদববাটি এলাকায় পুনর্ভবা নদীর তীরে বসবাসকারী মানুষজনেরা যে অসুবিধার মধ্যে পড়েছে তাদের পাশে থেকে কিছু ত্রাণ সামগ্রী দিয়ে সাহায্য করা হলো। এ বিষয়ে ত্রাণ পেয়ে গ্রামবাসী জানিয়েছেন, বাড়িতে অনেক জল উঠেছে, আমরা বাড়িতে থাকতে পারছি না। খুবই অসুবিধার মধ্যে দিন কাটাতে হচ্ছে। পুলিশের তরফে যে ত্রাণ দেওয়া হল তা আমাদের কিছুটা সাহায্য লাগবে।


0/Post a Comment/Comments