মাত্র ৪৫ সেকেন্ডের মধ্যে অড়হড় ডালের উপর তিরঙ্গা ও জয়হিন্দ্ লিখে স্বীকৃতি পেল "ইন্ডিয়া বুক অব রেকর্ডসে" , বাগনান পাতিনানের রূপজিৎ শাসমল ।



নিজস্ব সংবাদদাতা :- অড়হর ডালের উপর তেরঙ্গা ও জয় হিন্দ লিখে ইন্ডিয়া বুক অব রেকর্ডসে নাম তুললেন বাগনানের কলেজ পড়ুয়া। বাগনান কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্র, পাতিনান এর বাসিন্দা রূপজিৎ শাসমলকে সেই স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছে। ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডস এর পক্ষ থেকে গত বৃহস্পতিবার এই মর্মে শংসাপত্র মেডেল ও ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডস এর একটি বই পাঠানো হয়েছে ডাক মারফত।


     অড়হর ডালের অর্ধেক অংশের সমতল অংশের উপরে গেরুয়া সাদা সবুজ এই তিনটি রং করা হয় এবং তার ওপর জয় হিন্দ লিখে দেয়া হয়। রূপজিত জানায় মাত্র 45 সেকেন্ডের মধ্যে এই ছবি এবং জয় হিন্দ লিখতে সক্ষম হয়েছেন তিনি। যা ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডস এর কর্তৃপক্ষের নজর কেড়েছে। 


তাই তার এই কাজ ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডস এর বইয়়ে উঠে গেল। ইন্ডিয়া বুক অব রেকর্ডসে নাম তুলতে পেরে খুশি রূপজিতও। রুপজিৎ জানাই আমার  নতুন কিছু করার ইচ্ছা সবসময়ই  ছিল। সেই ইচ্ছাই আমাকে এত বড় কৃতিত্বের অধিকারী হওয়ার ক্ষেত্রে সাহায্য করল। বর্তমানে রুপজিত বাগনান কলেজের বিএ প্রথম বর্ষের ছাত্র। তবেে ছোটবেলা থেকেই তার এই পেন্টিং এর প্রতি আগ্রহ ছিল এবং ৫-৬ বছর বয়স থেকে তিনি এই ছবি আঁকার প্রশিক্ষণ নেয়। সাাধারণ ছবি আঁকার পাশোপাশি সে নজর দেয় মাইক্রো পেন্টিংয়ের প্রতি। 


বেশ কয়েক বছর ধরে সে মাইক্রো পেন্টিং অভ্যাস করছে। রূপজিৎ জানায় এক্ষেত্রে তাকে আকৃষ্ট করে মেদিনীপুরের চিত্রশিল্পী প্রসেনজিৎ করের শিল্পকর্ম। পরিচিত শিল্পীদের উৎসাহেই গত মার্চ মাসে রূপজিৎ তার শিল্পকর্ম পাঠান ইন্ডিয়া বুক অব রেকর্ডসের দফতরে। ২৫ মার্চ সেটাকে স্বীকৃতি দেয় কর্তৃপক্ষ। তারপর বৃহস্পতিবার তাকে তা আনুষ্ঠানিকভাবে জানায় ইন্ডিয়া বুক অব রেকর্ডস কর্তৃৃৃপক্ষ ।




0/Post a Comment/Comments

AB Banga News-এ খবর বা বিজ্ঞাপন দেওয়ার জন্য যোগাযোগ করুনঃ 9831738670 / 7003693038, অথবা E-mail করুনঃ banganews41@gmail.com