জমি জবর দখল করতে বাধা পেয়ে, দুষ্কৃতীরা প্রাণে মারার হুমকি দিল এডভোকেটকে। লিখিত অভিযোগ কালিয়াচক থানায়।


মালদা,

জমি জবর দখল করতে বাধা পেয়ে, দুষ্কৃতীরা প্রাণে মারার হুমকি দিল এডভোকেটকে। লিখিত অভিযোগ কালিয়াচক থানায়।

অভিযোগ সেপ্টেম্বর মাসের 1 তারিখে কিছু দুষ্কৃতীরা দলবল নিয়ে হাজির হয় জালালপুর সেরিকালচার অফিস সংলগ্ন মালদা কোর্টের অ্যাডভোকে টের জমিতে। তিনি মালদা কোর্টের অ্যাডভোকেট তার নাম মহাত্মা আলি মুন্সি। জানা যায় জালালপুর সেরিকালচার অফিস সংলগ্ন 32 শতক জমি, সেই জমিতে ছিল 112 টা তরতাজা বড় কলা গাছ। সমস্ত গাছ কেটে ফেলেছে মতিউর রহমানের নেতৃত্বে দুষ্কৃতীর দল। সেই খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় এডভোকেট মহাত্মা আলী মুন্সী।



 কলা গাছ কাটতে বাধা দিলেই তার ওপর দলবল নিয়ে চড়াও হয় মতিউর রহমান, এবং গলায় ধারালো হাসুয়া ধরে। প্রাণে মারার হুমকি দেয়, চিৎকার-চেঁচামেচি শুনতেই আশপাশের মানুষ ছুটে আসতে দেখে ঘটনাস্থল থেকে পালায় দুষ্কৃতীরা । আরো জানা যায় সেই জমির উপর সেরিকালচার দপ্তর এর সাথে মামলা চলছিল এডভোকেটের। সেই মামলার জিতে অ্যাডভোকেট মহাত্মা আলী মুন্সী। এবং আদালত স্থায়ী নিষেধাজ্ঞা জারি করে সেরিকালচার দপ্তরের ওপর। সব নিষেধাজ্ঞাকে গুরুত্ব না দিয়ে জবর দখলের চেষ্টা করে মতিউর রহমান। সূত্রে জানা যায় সেপ্টেম্বর মাসের 1 তারিখ মতিউর রহমানের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের হয় কালিচক থানায়। কিন্তু সেই অভিযোগের ভিত্তিকে কোনরকম গুরুত্ব না দিয়ে, আসামিকে না ধরে দুদিন পর এডভোকেট এর পিতা মাইনুদ্দিন মুন্সির বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করে, মতিউর রহমান। এ বিষয়ে অ্যাডভোকেট জানান পুলিশ যদি তদন্ত করে সঠিক পদক্ষেপ গ্রহণ না করে। তাহলে আমরা উচ্চ আদালতের সাহায্য নেব। এবং অভিযোগ জানাতে বাধ্য হব উপরমহল পর্যন্ত।

0/Post a Comment/Comments

Previous Post Next Post
Contact for advertising : 9831738670