মহরম নিয়ে প্রশাসনিক বৈঠক,উলুবেড়িয়া




করোনা পরিস্তিতিতে পবিত্র "মহরম" কি ভাবে পালন হবে সেই সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে উলুবেড়িয়া মহকুমা শাসকের ডাকে এক উচ্চপর্যায়ের প্রশাসনিক বৈঠক হয় 21শে আগষ্ট শুক্রবার , উলুবেড়িয়া রবীন্দ্র ভবনে।



উপস্তিত ছিলেন উলুবেড়িয়া পূর্ব কেন্দ্রের বিধায়ক ইদ্রিশ আলি, উলুবেড়িয়া মহকুমা শাসক অরণ্য বন্দোপাধ্যায়,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আশীষ মৌর্য , রানা মুখার্জী,এস ডি পি ও উলুবেড়িয়া অনিমেষ রায়,উলুবেড়িয়া পৌরসভার প্রশাসক অভয় দাস,আব্বাসউদ্দীন খাঁন, আকবর সেখ,পূর্ব কেন্দ্রের সভাপতি বেনুকুমার সেন,উলুবেড়িয়া পূর্ব কেন্দ্রের যুব সভাপতি তথা কাউন্সিলর বাদশা মিদদে,উলুবেড়িয়া থানার আই সি কৌশিক কুন্ডু,বাউড়িয়া থানার ও সি কৌশিক নাগ,মৌলানা ক্বারী আমানুল্লা আনসারী  প্রমুখ।




    বিধায়ক ইদ্রিশ আলি তাঁর বক্তব্যে বলেন, মহরম কোন আনন্দ উৎসবের মাস নয়।মহরম মাস  দুঃখের মাস তথা আসুরার দিন দুঃখের দিন।এই দিন কারবালার প্রান্তে এজিদ বাহিনীর দ্বারা হজরত ইমাম হোসেন (রাঃ)শহীদ হয়েছিলেন।তাই বিশ্বের ধম'প্রান মুসলিমরা এই মাসে তথা আসুরা অর্থাৎ দশম দিনে  (শাহাদতের /দুঃখের দিন )রোজা রাখেন,নামাজ পড়েন ।ইদ্রিশ আলি বলেন, আজকের দিনে আমরা কামনা করি বিশ্ব থেকে যেন করোনা লুপ্ত হয়ে যায় ।তিনি মুসলিম সম্প্রদায়ের কাছে আবেদন জানান মহরম এমনভাবে পালন করুন যাতে অন্য কেউ বা অন্য ধর্মের মানুষ আঘাত না পান।
       প্রশাসক অভয় দাস বলেন শান্তিপূর্ণ ভাবে মহরম পালন করার জন্য মুসলিম সম্প্রদায়ের আবেদন জানান ।তিনি বলেন আমরা আশাবাদী বাউরিয়া সহ যে সমস্ত জায়গায় মহরম পালিত হয় হিন্দু মুসলিম সকলে মিলেই শান্তি বজায় রাখবেন।
উল্লেখ্য মহরম মাসের চাঁদ গত পরশু অথাৎ'  বিশে আগষ্ট বৃহস্পতিবার রাত্রি দেখা গেছে আগামী 30  শে আগস্ট রবিবার মহরম মাসের দশম দিন অথাৎ আসুরার  দিন এই দিনেই পয়গম্বর (সাঃ) এর দৌহিত্র  (নাতি )হজরত  ইমাম হোসেন (রাঃ) শহীদ হন ।এজিদের দ্বারা হজরত ইমাম হোসেন  (রাঃ)  এজিদ বাহিনীর দ্বারা খুন হন করোনা পরিস্তিতিতে পবিত্র "মহরম" কি ভাবে পালন হবে সেই সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে উলুবেড়িয়া মহকুমা শাসকের ডাকে এক উচ্চপর্যায়ের প্রশাসনিক বৈঠক হয় উলুবেড়িয়া রবীন্দ্র ভবনে।
উপস্তিত ছিলেন উলুবেড়িয়া পূর্ব কেন্দ্রের বিধায়ক ইদ্রিশ আলি, উলুবেড়িয়া মহকুমা শাসক অরণ্য বন্দোপাধ্যায়,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আশীষ মৌর্য , রানা মুখার্জী,এস ডি পি ও উলুবেড়িয়া অনিমেষ রায়,উলুবেড়িয়া পৌরসভার প্রশাসক অভয় দাস,আব্বাসউদ্দীন খাঁন, আকবর সেখ,পূর্ব কেন্দ্রের সভাপতি বেনুকুমার সেন,উলুবেড়িয়া পূর্ব কেন্দ্রের যুব সভাপতি তথা কাউন্সিলর বাদশা মিদদে,উলুবেড়িয়া থানার আই সি কৌশিক কুন্ডু,বাউড়িয়া থানার ও সি কৌশিক নাগ,মৌলানা ক্বারী আমানুল্লা আনসারী সহ প্রমুখ।

    বিধায়ক ইদ্রিশ আলি তাঁর বক্তব্যে বলেন, মহরম কোন আনন্দ উৎসবের মাস নয়।মহরম মাস  দুঃখের মাস তথা আসুরার দিন দুঃখের দিন।এই দিন কারবালার প্রান্তে এজিদ বাহিনীর দ্বারা হজরত ইমাম হোসেন (রাঃ)শহীদ হয়েছিলেন।তাই বিশ্বের ধম'প্রান মুসলিমরা এই মাসে তথা আসুরা অর্থাৎ দশম দিনে  (শাহাদতের /দুঃখের দিন )রোজা রাখেন,নামাজ পড়েন ।ইদ্রিশ আলি বলেন, আজকের দিনে আমরা কামনা করি বিশ্ব থেকে যেন করোনা লুপ্ত হয়ে যায় ।তিনি মুসলিম সম্প্রদায়ের কাছে আবেদন জানান মহরম এমনভাবে পালন করুন যাতে অন্য কেউ বা অন্য ধর্মের মানুষ আঘাত না পান।
       প্রশাসক অভয় দাস বলেন শান্তিপূর্ণ ভাবে মহরম পালন করার জন্য মুসলিম সম্প্রদায়ের আবেদন জানান ।তিনি বলেন আমরা আশাবাদী বাউরিয়া সহ যে সমস্ত জায়গায় মহরম পালিত হয় হিন্দু মুসলিম সকলে মিলেই শান্তি বজায় রাখবেন।
উল্লেখ্য মহরম মাসের চাঁদ গত পরশু অথাৎ'  বিশে আগষ্ট বৃহস্পতিবার রাত্রি দেখা গেছে আগামী 30  শে আগস্ট রবিবার মহরম মাসের দশম দিন অথাৎ আসুরার  দিন এই দিনেই পয়গম্বর (সাঃ) এর দৌহিত্র  (নাতি )হজরত  ইমাম হোসেন (রাঃ) শহীদ হন ।ঐদিন টি বিশ্বের ধম'প্রান মুসলিমরা শোক পালন করেন ।
     মহকুমা শাসক অরন্য বন্দ্যোপাধ্যায়, বলেন সরকারি নিয়ম মেনে  এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে মহরম পালন করুন ।

0/Post a Comment/Comments

AB Banga News-এ খবর বা বিজ্ঞাপন দেওয়ার জন্য যোগাযোগ করুনঃ 9831738670 / 7003693038, অথবা E-mail করুনঃ banganews41@gmail.com