জলে ডুবে কিশোরের মৃত্যু ঘটনার ৪৮ ঘন্টা পরেও হুঁশ ফেরেনি পুলিশ ও প্রশাসনের।




মালদা, ।

   জলে ডুবে কিশোরের মৃত্যু ঘটনার ৪৮ ঘন্টা পরেও হুঁশ ফেরেনি পুলিশ ও প্রশাসনের। পুরাতন মালদার সাহাপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের ভাটরা বিলে দিব্যি চলছে নৌকার মধ্যে ডিজে বাজিয়ে হৈ-হুল্লোড় । এমনকি একাংশ টিনএজারেরা মদের পসরা সাজিয়ে নৌকা করে ঘুরে বেড়াচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে । 



 রীতিমত একাংশ যুবকদের নৌকার মধ্যে ডিজে বাজিয়ে রীতিমতো ফুর্তি করতে দেখা গিয়েছে গভীর জলাশয় মাঝে। এরকম ভাবে নৌ-চলাচল করার ক্ষেত্রে পুলিশ  কেন কোনরকম প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নিচ্ছে না, তা নিয়েও বিভিন্ন মহল থেকে অভিযোগ উঠতে শুরু করেছে ।

যদিও এব্যাপারে পুরাতন মালদা থানার আইসি শান্তিনাথ পাঁজা জানিয়েছে, ভাটরা বিল এলাকায় শনিবারের কিশোরের জলে ডুবে মৃত্যুর ঘটনার পর সেখানে নজরদারি চালানো হচ্ছে।

উল্লেখ্য , শনিবার বিকালে বন্ধুদের সাথে স্নান করতে গিয়ে তলিয়ে যায় জিৎ চৌধুরী (১৬) নামে এক কিশোর। ওই কিশোর তার বন্ধুদের সঙ্গে নেশাগ্রস্ত অবস্থায় স্নান করতে নেমেছিল বলে প্রাথমিক তদন্তে জানতে পারে পুলিশ । এই ঘটনার পর পুলিশ ওই কিশোরীকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করে। কিন্তু ঘটনার ৪৮ ঘন্টার মধ্যেই দেখা গেল অন্যরকম দৃশ্য । রীতিমত নৌকায় ডিজে বাজিয়ে টিনএজারদের দল মাঝ জলাশয়ে  হইহুল্লোড় করছে । এমনকি কোথাও কোথাও চলছে আবার মদ্যপানের আসর। যেখানে অল্প বয়সী একাংশ যুবক-যুবতীদের দেখা গিয়েছে। ছোট থেকে বড় বিভিন্ন ধরনের যন্ত্র চালিত নৌকা করে ঘুরে বেড়ানো হচ্ছে গোটা ভাটরা বিল । অথচ এব্যাপারে পুলিশ প্রশাসনের কোনো রকম হেলদোল নেই বলে অভিযোগ উঠেছে।

বলাবাহুল্য, প্রতিবছর বর্ষার মরশুমে কালিন্দী নদীর জলে ভাটরা এলাকার বিশাল বিলটি ডুবে যায়। যেটি পরবর্তীতে প্রায় সমুদ্রের আকার ধারণ করে। মালদার মানুষের কাছে ভাটরা বিল একপ্রকার মিনি দীঘা নামেই পরিচিত হয়ে গিয়েছে। আর সেখানেই ঘোরার নাম করে একাংশ টিনএজারদের দল রীতিমতো জীবনের ঝুঁকি নিয়ে নৌকা করে ফুর্তি করছে বলে অভিযোগ । যেকোনো সময় বড় ধরনের বিপদ ঘটে যাওয়ার আশঙ্কা করছেন সংশ্লিষ্ট এলাকার গ্রামবাসীরা। এব্যাপারে পুলিশ ও প্রশাসনকে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন স্থানীয় গ্রামবাসীরা। 

ভাটরা এলাকার স্থানীয় বাসিন্দাদের বক্তব্য ,  রবিবার করে বেশি বহিরাগত মানুষদের ভিড় হচ্ছে  এই এলাকায় । করোনা সংক্রমণের মধ্যেও কোনরকম সামাজিক দূরত্ব মানা হচ্ছে না। কিছু নৌ-চালকেরা ব্যবসার নামে যাত্রীদের বিপজ্জনকভাবে নৌকায় উঠিয়ে ঘোরাচ্ছেন । অনেকে আবার নৌকার মধ্যে ডিজে বাজিয়ে ফুর্তি করছে। যে কোন মুহূর্তে বড় ধরনের অঘটন ঘটে যাওয়ারও আশঙ্কা করা হচ্ছে। এব্যাপারে পুলিশ ও প্রশাসনের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া উচিত।

সাহাপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান উকিল মন্ডল জানিয়েছেন , ভাটরা বিলে নৌকা নিয়ে বিপজ্জনকভাবে ঘোরার বিষয়টি আমার জানা নেই । তবে যদি এমনটা হয়ে থাকে, তবে অবশ্যই পুলিশ ও প্রশাসনের কর্তাদের বলবো এব্যাপারে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার।


ছবি ---------জলে ডুবে কিশোরের মৃত্যুর ঘটনার পরেও, ভাটরা বিলে বিপজ্জনকভাবে নৌকায় ডিজে বাজিয়ে  একাংশ টিনএজারদের ফুর্তির আসর।
AB Banga News-এ খবর বা বিজ্ঞাপন দেওয়ার জন্য যোগাযোগ করুনঃ 9831738670 / 7003693038, অথবা E-mail করুনঃ banganews41@gmail.com