সেমিস্টারের নম্বরেই চূড়ান্ত মূল্যায়নের দাবি নিয়ে সোশ্যালে সরব বিদ্যাসাগরের পড়ুয়ারা


 রুপম দাস,পশ্চিম মেদনীপুর:

 আগের সেমিস্টার গুলিতে প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতেই ফাইনাল সেমিস্টারের মূল্যায়ন করার দাবিতে এবং কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের শিক্ষাঙ্গনকে রাজনীতিকরণ করার প্রতিবাদে বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অসংখ্য ছাত্র-ছাত্রী, ছাত্র সংসদ এবং এবং তৃণমূল ছাত্র পরিষদ ইউনিটের পক্ষ থেকে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে বিক্ষোভ দেখানো হয়েছে। পরীক্ষা কেন্দ্রে গিয়ে ফাইনাল সেমিস্টারে বসতে হবে বলে সম্প্রতি ইউজিসির পক্ষ থেকে এক নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। এই নির্দেশিকার বিরুদ্ধেই সরব হয়েছেন বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীরা। তাঁদের দাবি বর্তমান করোনা পরিস্থিতির মধ্যে পরীক্ষার নাম করে তাঁদেরকে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দেওয়া হচ্ছে। করোনা পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার জন্য সরকার যখন লকডাউনের পথে যেতে বাধ্য হচ্ছে তখন ইউজিসি তুঘলকি সিদ্ধান্তের মধ্যে দিয়ে অসংখ্য ছাত্র-ছাত্রীকে করোনা সংক্রমনের মুখে ফেলতে চাইছে। তাই ছাত্র-ছাত্রীরা হাতে লেখা পোস্টার নিয়ে ছবি তুলে সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করছেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সংসদের সহকারী সাধারণ সম্পাদক প্রসেনজিৎ বেরা এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের তৃণমূল ছাত্র পরিষদ ইউনিটের সভাপতি সিদ্ধার্থ মাইতি প্রশ্ন তোলেন চাকরির পরীক্ষা দিতে গেলে যখন আগের পরীক্ষার ফল দেখেই কর্ম প্রার্থীর যোগ্যতা নির্ণয় করা হয়। তাহলে এক্ষেত্রেও কেন আগের সেমিস্টারের প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে ফাইনাল পরীক্ষার মূল্যায়ন করা হবে না? কেন এই কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে লক্ষ-লক্ষ ছাত্র-ছাত্রীর জীবন নিয়ে ছিনিমিনি খেলা হচ্ছে? করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও তাঁদেরকে পরীক্ষায় বসতে বাধ্য করা হচ্ছে। ছাত্র-ছাত্রীরা করোনা সংক্রমিত হলে তার দায় কে নেবে? তারা বলেন কেন্দ্রের বিজেপি সরকার দীর্ঘদিন ধরেই শিক্ষাঙ্গনকে রাজনীতিকরণ করার চক্রান্ত চালিয়ে যাচ্ছে। কেন্দ্রীয় সরকার ইউজিসি-কেও গেরুয়াকরণ করে ছাত্র-ছাত্রীদের মৃত্যুর মুখে ঠেলে দিতে চাইছে। তাঁরা এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে তীব্র ধিক্কার জানান। পাশাপাশি তাঁরা রাজ্যের সমস্ত ছাত্র-ছাত্রীকে ইউজিসির এই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে গর্জে ওঠার জন্য আহ্বান জানান।


0/Post a Comment/Comments

Previous Post Next Post
Contact for advertising : 9831738670