শহীদ দিবস পালন বীরভূমের দুবরাজপুর পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ডে




সেখ ওলি মহম্মদ, দুবরাজপুর, বীরভূম 

১৯৯৩ সালের পর থেকে প্রতিবছর এই দিন শহিদ দিবস হিসেবেই পালন করে আসছে তৃণমূল কংগ্রেস। আজ বীরভূম জেলার দুবরাজপুর পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ডের প্রাক্তন কাউন্সিলর সেখ নাজির উদ্দিনের নেতৃত্বে ২১ শে জুলাই শহীদ দিবস পালন করা হল। প্রথমে তৃণমূল কংগ্রেসের পতাকা উত্তোলন করে শহীদ বেদীতে পুস্পার্ঘ্য নিবেদন করেন তিনি। তারপর আজকের দিনটার গুরুত্ব তুলে ধরেন। উল্লেখ্য, সাল ১৯৯৩ সালে পশ্চিমবঙ্গ যুব কংগ্রেসের ‘আগুনে নেত্রী’ তথা সভাপতি ছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তখন রাজ্যের ক্ষমতায়  ছিল জ্যোতি বসুর সরকার। সেই  সময় সিপিএমের বিরুদ্ধে ছাপ্পা-রিগিং-এর অভিযোগ নিয়মিত শোনা যেত বিরোধীদের মুখে। এমন আবহেই নির্বাচনী প্রক্রিয়ায় স্বচ্ছতা আনার জন্য সচিত্র ভোটার পরিচয়পত্রের দাবিতে ২১ জুলাই মহাকরণ অভিযানের ডাক দিয়েছিলেন তৎকালীন যুব কংগ্রেস নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।  ১৯৯৩ সালের ২১ জুলাই মমতার ডাকে মহাকরণ অভিযানের জন্য কলকাতার রাজপথে নামেন কয়েক হাজার যুব কংগ্রেসকর্মী। রাজ্যের প্রধান প্রশাসনিক সচিবালয়ে এই অভিযান রুখতে তৎপর হয় পুলিশ। বিভিন্ন ক্রসিং-এ গড়া হয় ব্যারিকেড। এরপরই হঠাৎ চলতে থাকে গুলি। সেই গুলিতে নিহত হন ১৩ জন যুবকংগ্রেস কর্মী। এই ১৩ যুবকংগ্রেসকর্মীর মৃত্যুতে রীতিমতো উত্তাল হয়ে উঠেছিল  রাজ্য রাজনীতি। ১৯৯৩ সালের এই ঘটনার পর থেকেই প্রতিবছর এই দিনটিকে ‘শহিদ দিবস’ হিসেবে পালন করা হয়।

0/Post a Comment/Comments

Previous Post Next Post
Contact for advertising : 9831738670