শ্লীলতাহানীর ঘটনায় আবারও উত্তপ্ত বাগনান



রুপম দাস,হাওড়া(বাগনান): 

 যেই রক্ষক সেই ভক্ষক।নারী নির্যাতনের ঘটনায় ফের উত্তাল বাগনান ।এবারো ঘটনার কেন্দ্র সেই বাঙালপুর।উল্লেখ্য দিন কয়েক আগে বাঙালপুরে একশো দিনের কাজে নিযুক্ত মহিলার শ্লীলতাহানীর ঘটনায় উত্তাল হয়েছিল এলাকা ।এবার খোদ যে রক্ষক সেই ভক্ষক ।টানা তিন বছর ধরে মামার বিকৃত লালসার শিকার হল এক নাবালিকা ।আর এই নাক্কারজনক কান্ডে মদত খোদ দিদার ।চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটেছে বাগনানের বাঙালপুর গ্রামের পাল পাড়ায় ।পুলিশ অভিযুক্ত মামা রমেশ মালিক ও দিদা ঝুনু মালিককে গ্রেফতার করেছে।জানা গিয়েছে বাঙালপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের পালপাড়ার বাসিন্দা দিদা ঝুনু মালিক ও মামার সংসারে থাকতো তেরো বছরের ওই নাবালিকা ।ছোট বেলা থেকেই সে মামার বাড়িতে মানুষ হয়েছে ।নাবালিকার মা তাকে দেড় বছর বয়সে ফেলে রেখে অন্যত্র বিয়ে করে চলে যায় ।সেই থেকেই নাবালিকা দিদার কাছে থাকতো ও পড়াশোনা করতো।কিন্তু কৈশোরে পা দেওয়ায় তাকে পড়াশোনা ছাড়িয়ে অন্যের বাড়িতে কাজে লাগিয়ে দেয়।দিন দুয়েক আগে ওই নাবালিকাকে বিষন্ন দেখে প্রতিবেশীরা জিজ্ঞাসা করলে সে কাঁদতে কাঁদতে সব কথা জানিয়ে দেয় ।এরপরেই উত্তাল হয়ে ওঠে এলাকা।বাঙালপুর গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্যা মনোরমা মান্না যান ঘটনাস্থলে তিনিই ওই নাবালিকাকে নিয়ে থানায় যান ।অন্যদিকে এলাকার মহিলারা অভিযুক্তকে ধরে বেধড়ক মারধোর করে পুলিশের হাতে তুলে দেয়।অন্যদিকে অভিযুক্ত দিদাকে ও পুলিশ গ্রেফতার করেছে ।ওই নাবালিকা জানিয়েছে বিষয়টি দিদাকে জানালেও তিনি পাত্তা দেন নি ।বরং মামার কাজে সম্মতি দিতে বলেছিল ।উল্লেখ্য অভিযুক্ত দিদার বিরুদ্ধে এর আগেও ওই নাবালিকার ভাইকে বিক্রি করে দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে ।এদিকে এই ঘটনার প্রতিবাদে দোষীদের শাস্তির দাবিতে বাঙাল পুর পঞ্চায়েতের তৃণমূল উপপ্রধান আশিক রহমান নেতৃত্বে মিছিল করে।ঘর ঘেরাও করে তারা ।এদিকে এই ঘটনায় এলাকায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে।


0/Post a Comment/Comments

AB Banga News-এ খবর বা বিজ্ঞাপন দেওয়ার জন্য যোগাযোগ করুনঃ 9831738670 / 7003693038, অথবা E-mail করুনঃ banganews41@gmail.com