হোমিওপ্যাথি মেডিকেল অফিসারদের করোনা চিকিৎসার জন্য নিযুক্ত করার আর্জি: ডাঃ শম্পা দাস


 রুপম দাস,হাওড়া: 

আর্সেনিকাম অ্যালবাম-৩০ ব্যবহার করার জন্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হস্তক্ষেপ চাইলেন বেঙ্গল আয়ুস মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ডাঃ শম্পা দাস।তিনি জানান এই রাজ্যের গ্রামাঞ্চলের মানুষদের স্বল্পমূল্যে চিকিৎসা পরিষেবা দেওয়ার লক্ষ্যে মুখ্যমন্ত্রী তথা স্বাস্থ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যদি আয়ুস দপ্তরের প্রতি চিকিৎসা পরিষেবার দায়িত্ব আরোপ করেন তাহলে রাজ্যের অসংখ্য গরিব মানুষ স্বল্প মূল্যে চিকিৎসা পরিষেবা পেতে পারেন। এ বিষয়ে তিনি ইতিমধ্যেই উপস্বাস্থ্য মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য,পুরো ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম,পঞ্চায়েত মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের কাছে তাঁর আর্জি জানিয়েছেন। তিনি বলেন প্রতিদিন গ্রামাঞ্চলের অসংখ্য মানুষ করোনা সংক্রমিত হচ্ছেন। পরিকাঠামোগত কারনে তাঁদের প্রত্যেককে প্রাতিষ্ঠানিক চিকিৎসা পরিষেবা দেওয়া সম্ভব নয়। যেসব চিকিৎসক করোনার সঙ্গে প্রতিনিয়ত যুদ্ধ করে চলেছেন তাঁদের পক্ষেও প্রতিদিন গ্রাম-গঞ্জে গিয়ে মানুষকে চিকিৎসা পরিষেবা দেওয়া সম্ভব নয়। অথচ হাসপাতালে স্থান সংকুলানের অভাবে সংক্রামিত ব্যক্তিদের বাড়িতে রেখে চিকিৎসা করার পরিস্থিতি তৈরি হচ্ছে। তাই রাজ্য সরকারের যেসব হোমিওপ্যাথি মেডিকেল অফিসার, আয়ুর্বেদিক মেডিকেল অফিসার, ইউনানী চিকিৎসকরা রয়েছেন তাঁদেরকেও দায়িত্ব দিয়ে গ্রামাঞ্চলের মানুষদের চিকিৎসা পরিষেবার কাজে সংযুক্ত করা হোক। হোমিওপ্যাথি বা আয়ুর্বেদিক চিকিৎসায় পার্শ্ব প্রতিক্রিয়ার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে, একইসঙ্গে গ্রামের গরিব মানুষ স্বল্পমূল্যে এই চিকিৎসা পরিষেবা পেতে পারেন বলেও তিনি তাঁর অভিমত প্রকাশ করেন।

0/Post a Comment/Comments

Previous Post Next Post
Contact for advertising : 9831738670