পরকীয়া সন্দেহে গণধোলাই,





মালদা ঃ 

পরাকীয়া সন্দেহে মালদা টাউন রেল স্টেশন চত্বরে গণধোলাইয়ের শিকার হলেন  বৃহস্পতিবার সকালে গঙ্গারামপুরের এক যুবক। এই ঘটনায় পুলিশকে খবর দিলে অভিযুক্ত যুবককে আটক করে থানায় নিয়ে গিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে ইংরেজবাজার থানার পুলিশ।


      অভিযুক্ত যুবকের নাম তাপস ঘোষ, তার বাড়ি গঙ্গারামপুর থানার সাহা পাড়া এলাকায়। অন্যদিকে পলাতক গৃহবধূর নাম সীমা মজুমদার, তার স্বামী শংকর মজুমদার, বাড়ি ইংরেজবাজার থানার দামোদর পুর গ্রামে। গৃহবধূর ১৩ বছরের সপ্তম শ্রেণীতে পাঠরত এক সন্তানো রয়েছে।
        জানা যায় গৃহবধূর বাবার বাড়ি ধৃত যুবকের এলাকাতেই। তাদের দুজনের মধ্যে দুঃসম্পর্কের দিদি ভাইয়ের সম্পর্কও রয়েছে। গত ছ'মাস ধরে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে বলে জানান গৃহবধূর স্বামী। এদিন গৃহবধূ দিদির বাড়িতে যাওয়ার নাম করে বাড়ি থেকে বেরিয়ে আসে। 



গৃহবধূর স্বামী ও তার ছেলে জানান, এদিন তারা বাইরে পালানোর  উদ্দেশ্যে মালদা টাউন রেল স্টেশন চত্বরে আসে। এই ঘটনা গোপন সূত্রে  খবর পেয়ে গৃহবধূর স্বামী শংকর মজুমদার ও ছেলে শুভঙ্কর মজুমদার রেলস্টেশন চত্বরে এসে খোঁজাখুঁজি শুরু করে এবং লোককেও ঘটনার কথা বলতেই অভিযুক্ত যুবকটি অটো গাড়িতে করে স্টেশন চত্বর থেকে পালানোর চেষ্টা করে । সঙ্গে সঙ্গে দৌড়ে গিয়ে স্থানীয় লোকজন যুবককে ধরে গণধোলাই দিতে শুরু করে। কিন্তু ওই গৃহবধূ তার আগেই সেখান থেকে পালিয়ে যায়। পরে পুলিশকে খবর দিলে যুবককে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। এবং পুরো ঘটনা তদন্ত শুরু করে ইংরেজবাজার থানার পুলিশ। 

0/Post a Comment/Comments

Previous Post Next Post
Contact for advertising : 9831738670