CAMELIA সংস্থা বছরের বিভিন্ন সময়ে অসহায় দুঃস্থ মানুষের পাশে থাকে।




সংবাদদাতা,

মর্শিদাবাদ জেলার বহরমপুরের "CULTURAL AND MULTI EDUCATION LINK IN ACTION (CAMELIA)"  বহরমপুর শহরের গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলোতে মূকাভিনয় ও  গান সহকারে অভিনয় করে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ ও লকডাউন নির্দেশ মান্য করবার বিষয়ে জনসাধারণকে সচেতন করে সাড়া ফেলে দিয়েছে।




 CAMELIA সংস্থা বছরের বিভিন্ন সময়ে অসহায় দুঃস্থ মানুষের পাশে থাকে। 

সমাজের দুঃস্থ, দরীদ্র, প্রতিবন্ধী, অনগ্ৰসর, সংখ্যালঘু ছেলেমেয়েদের নিয়ে নিয়মিত মূকাভিনয় ও নাটক চর্চা করে থাকে। লকডাউনে CAMELIA তাদের সাধ্যমতো কিছু অসহায় মানুষদের খাদ্য সামগ্রী ও মাস্ক পৌঁছে দিয়েছে। 

CAMELIA সংস্থার কর্ণধার সুজিত কুমার দাস এর পরিকল্পনা ও নির্দেশনায় শিশু শিল্পী ভূমিকা দাস ও সুজিত কুমার দাস এর উপস্থাপনায় ছোট্ট নাটিকা "করোনা চেতনা" র মাধ্যমে সোস্যাল মিডিয়ায় চলছে সচেতনতার প্রচার। 




আজকে সকাল ৮ টা থেকে সকাল ১১ টা পর্যন্ত সুজিত কুমার দাস এর নেতৃত্বে CAMELIA সংস্থার পক্ষ থেকে বহরমপুরের  গোরাবাজার নিমতলা, রাজা মিঞার মোড়, ওল্ড পুলিশ লাইন রোড, কষাইখানা মোড়,  জমিদারি কুমার হোস্টেল মোড়, গোয়ালপাড়া, শিবতলা মোড়, গোরাবাজার পুলিশ ফাঁড়ি, বাকু সেনের দোকান মোড়, জজকোর্ট ও এন সি সি অফিস মোড়ে করোনা বিষয়ে সচেতনতামূলক দুর্দান্ত গান এবং দারুন আকর্ষণীয় মূকাভিনয় "করোনা চেতনা" উপস্থাপনা করা হয়।

 সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক ও পরিচালক তথা বিশিষ্ট মূকাভিনয়/নাটক শিল্পী, তালবাদ্য শিল্পী, সাহিত্যিক এবং সমাজসেবী সুজিত কুমার দাস তার স্বাভাবিক দক্ষতায় করোনা বিষয়ে সচেতনতামূলক গান রচনা করে সুর দিয়ে নিজেই ঢোল বাজিয়ে নেচে অভিনয় করে প্রদর্শন করেছেন।‌




 সুজিত কুমার দাস নিপুণ দক্ষতায় দারুন সুন্দর ভাবে একক মূকাভিনয় 'করোনা চেতনা' র মাধ্যমে করোনা বিষয়ে মানুষজনকে সচেতনতার বার্তা দিচ্ছেন। করোনা ভাইরাসের কারণে লকডাউন চলাকালীন সারা ভারতবর্ষে সুজিত কুমার দাস প্রথম মূকাভিনয় শিল্পী যিনি করোনা বিষয়ে তার মস্তিষ্ক প্রসূত এই সুন্দর মূকাভিনয় স্কেচ টি তৈরী করে স্ট্রিট কর্ণারিংয়ের মাধ্যমে পরিবেশন করছেন। 

বহু মানুষ উৎসাহিত হয়েছেন এবং তারা যে সচেতন হয়েছেন তা প্রকাশ করেছেন।

0/Post a Comment/Comments

Previous Post Next Post
Contact for advertising : 9831738670