শবনমকে রক্তদিলেন শুভঙ্কর চক্রবর্তী,



বিশেষ প্রতিবেদন, উলুবেড়িয়া,

"করোনার মতো ভয়াভয় পরিস্থিতিতেও সবনম পারভিনকে রক্ত দিয়ে প্রান বাঁচিয়ে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির অনন্য নজীর গড়ল শুভঙ্কর চক্রবর্তী।।"
    COVID-19 এর করাল গ্রাসের হাত থেকে বাঁচতে সমস্ত মানুষ যখন ভীতসন্ত্রস্ত,  সমস্ত ব্লাডব্যাঙ্ক রক্তশূণ্য, ঠিক সেই সময় বারে বারে এগিয়ে আসছে শ্যামপুরের কিছু নির্ভীক যুবক সম্প্রদায়। 

শ্যামপুর থানার আলিপুরের রামচন্দ্রপুরের বাসিন্দা সৈয়েদ সাদরুল্লা এর ১১ বৎসরের কন্যা সবনম পারভিন থ্যালাসেমিয়া আক্রান্ত। সৈয়দবাবু তার কন্যার জন্য সমস্ত ব্লাডব্যাঙ্ক  ঘুরেও যখন ব্যার্থ তখন 'পানশিলা দেউলী আজাদ স্পোর্টিং ক্লাবের' অন্যতম সদস্য সেখ ফয়েজুল রহমানের সহযোগিতায় এগিয়ে আসে এক নির্ভীক তরতাজা যুবক কমলপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের অধীনস্থ নুনেবাড় গ্রামের অশোক চক্রবর্তীর পুত্র শুভঙ্কর চক্রবর্তী।। 




 শুভঙ্করবাবু আজ নিজে উলুবেড়িয়া হাসপাতালে গিয়ে সবনম পারভিনকে রক্ত দিয়ে প্রানে বাঁচান। সবনমের বাবা শুভঙ্করকে বলেন এইরূপ ভয়াভয় পরিস্থিতিতে রক্ত দিয়ে যেভাবে তার মেয়েকে বাঁচালেন একদিকে যেমন তিনি সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির অনন্য নজীর গড়লেন, আবার অন্যদিকে তেমনি  দেবদূতের মতো পাশে দাঁড়ালেন।

 তিনি ফয়েজুলবাবুকেও অসংখ্য ধন্যবাদ জানালেন। ফয়েজুল রহমান বললেন "কারোর রক্তের কোনো অভাব ঘটলে তাঁর 'পানশিলা দেউলী আজাদ স্পোর্টিং ক্লাব' সবসময় পাশে আছে।




 এই ক্লাবের সমস্ত সদস্যরা আপ্রাণ চেষ্টা করে  সমস্যা সমাধান করার চেষ্টা করবেন। " তিনিও শুভঙ্করবাবুকে অসংখ্য ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন এইরূপ ভয়ানক পরিস্থিতিতে রক্ত দান করার জন্য।।

0/Post a Comment/Comments

Previous Post Next Post
Contact for advertising : 9831738670