উত্তর মালদা সাংসদ কে মালদার হরিশ্চন্দ্রপুর এ ঢুকতে বাধা পুলিশের



মালদা ১২মে:

জেলায় হু হু করে বাড়ছে করোনার সংক্রমণ।করোনার গুজবকে কেন্দ্র করে,মালদার হরিশ্চন্দ্রপুর থানা রশিদাবাদ এলাকায় কয়েকটি বাড়িতে ভাঙচুর চালানো হয়। 

পাশের মন্দিরে থাকা প্রণামী বাক্স লুট করা হয়। গোটা ঘটনা নিয়ে টুইটারে তার প্রতিক্রিয়া দেন রাজ্যপাল।  এরপরই আজ ওই গ্রামে যাওয়ার চেষ্টা করেন উত্তর মালদার বিজেপি সংসদ খগেন মুর্মু। 

কিন্তু তারপর আটকায় মালদা জেলার হরিশচন্দ্রপুর থানার পুলিশ। তাকে গ্রামে যেতে দেওয়া হয়নি। কন্টাইন্মেন্ট জোন হিসাবে ঘোষণা হয়েছে হরিশ্চন্দ্রপুর এর ওই এলাকা।

কারণ ওই রশিদাবাদ গ্রাম পঞ্চায়েতের দুটি গ্রামে করোনা আক্রান্তের হদিস মিলেছে। এই অজুহাতে আজ সাংসদকে ওই এলাকায় ঢুকতে দিলো না হরিশ্চন্দ্রপুর পুলিশ প্রশাসন।

এ নিয়ে ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয় এলাকার বিজেপি সমর্থকদের মধ্যে। বাধ্য হয়ে তাকে ফিরে আসতে হয় গোটা ঘটনা নিয়ে অভিযুক্তদের কঠোর শাস্তির দাবি করেন সাংসদ।
    সাংসদের ঘটনাস্থল পরিদর্শন করতে যাওয়া নিয়ে কটাক্ষ করেছেন তৃণমূলের জেলা সভানেত্রী মৌসাম বেনাজির নুর। তিনি বলেন এতদিন খগেন মুর্মু কে দেখা যায়নি। 

হরিশ্চন্দ্রপুর এলাকার করোনা পরিস্থিতি ভয়ঙ্কর। রাজনীতি করতে যাওয়ার উদ্দেশ্যে তিনি সেখানে যাচ্ছিলেন। তিনি যে দাবিগুলি   করছেন সেগুলি ভিত্তিহীন।
শনিবার রাত্রে ঘটনার পর থেকেই ওই গ্রাম পঞ্চায়েতের এগুলি এখনো থমথমে হয়ে আছে। এ পর্যন্ত চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে হরিশ্চন্দ্রপুর পুলিশ প্রশাসন। বাকি অভিযুক্তদেরখোঁজে তল্লাশি চলছে।

0/Post a Comment/Comments

Previous Post Next Post
Contact for advertising : 9831738670