করোনা চেতনা" র মাধ্যমে সোস্যাল মিডিয়ায় চলছে ,





সংবাদদাতা: বহরমপুর, মুর্শিদাবাদ,





করোনা ভাইরাসের করালগ্ৰাসে সারা বিশ্ব আজ বিপর্যস্ত। মানুষ আজ গৃহবন্দী। ফলে বহু মানুষ আজ কর্মহীন হয়ে পড়েছেন। এই অসহনীয় পরিস্থিতিতে সরকারের পাশাপাশি বহরমপুরের "CULTURAL AND MULTI EDUCATION LINK IN ACTION (CAMELIA)" সংস্থা অসহায় দুঃস্থ মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে।



 সারা বছর এই সংস্থা মূকাভিনয় ও নাটক চর্চা করলেও সূচনালগ্ন থেকেই CAMELIA সংস্থা দুঃস্থ ও দরীদ্র মানুষদের বিভিন্ন ভাবে সহযোগিতার হাত বাড়িয়েছে। 


বর্তমান পরিস্থিতিতে সংস্থা তাদের সাধ্যমতো বেশ কিছু অসহায় মানুষদের খাদ্য সামগ্রী ও মাস্ক পৌঁছে দিয়েছে। কিছু জনকে ফোন করে ডেকে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছে।


 এছাড়া CAMELIA সংস্থার কর্ণধার সুজিত কুমার দাস এর পরিকল্পনা ও নির্দেশনায় শিশু শিল্পী ভূমিকা দাস ও সুজিত কুমার দাস এর উপস্থাপনায় ছোট্ট নাটিকা "করোনা চেতনা" র মাধ্যমে সোস্যাল মিডিয়ায় চলছে সচেতনতার প্রচার। 


সম্প্রতি CAMELIA সংস্থার পক্ষ থেকে বহরমপুরের  গোরাবাজার নিমতলা, কৃষ্ণনাথ কলেজ ঘাট, কালেক্টরেট মোড়, টেক্সটাইল কলেজ মোড়, গীর্জার মোড়, বাস স্ট্যান্ড, মুর্শিদাবাদ মেডিকেল কলেজ মোড়, জেলা আদালত মোড় ইত্যাদি বিভিন্ন জায়গায় করোনা বিষয়ে সচেতনতামূলক দুর্দান্ত গান এবং দারুন আকর্ষণীয় মূকাভিনয় "করোনা চেতনা" উপস্থাপনা করা হয়।


 সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক ও পরিচালক তথা বিশিষ্ট মূকাভিনয়/নাটক শিল্পী, তালবাদ্য শিল্পী, সাহিত্যিক এবং সমাজসেবী সুজিত কুমার দাস তার স্বাভাবিক দক্ষতায় করোনা বিষয়ে সচেতনতামূলক গান রচনা করে সুর দিয়ে নিজেই ঢোল বাজিয়ে নেচে অভিনয় করে প্রদর্শন করেছেন।‌ সুজিত কুমার দাস নিপুণ দক্ষতায় দারুন সুন্দর ভাবে একক মূকাভিনয় 'করোনা চেতনা' র মাধ্যমে করোনা বিষয়ে মানুষজনকে সচেতনতার বার্তা দিচ্ছেন।

 করোনা ভাইরাসের কারণে লকডাউন চলাকালীন সারা ভারতবর্ষে সুজিত কুমার দাস প্রথম মূকাভিনয় শিল্পী যিনি করোনা বিষয়ে তার মস্তিষ্ক প্রসূত এই সুন্দর মূকাভিনয় স্কেচ টি তৈরী করে স্ট্রিট কর্ণারিংয়ের মাধ্যমে পরিবেশন করছেন। বহু মানুষ উৎসাহিত হয়েছেন এবং তারা যে সচেতন হয়েছেন তা প্রকাশ করেছেন।

0/Post a Comment/Comments