নিউ বারাকপুর বয়েজ হাই স্কুলে রবীন্দ্র জয়ন্তী পালন






অলোক আচার্য, নিউব্যারাকপুর : 

বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১৫৯তম জন্মদিন পালন করল নিউ বারাকপুর কলোনি বয়েজ হাই স্কুল। 

শুক্রবার বিকেলে বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের  কক্ষে। শুরুতে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ড. অনিরুদ্ধ বিশ্বাস রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের প্রতিচ্ছবিতে মাল্যদান করে শ্রদ্ধার্ঘ্য জানান।

 পঁচিশে বৈশাখ বিশ্বকবির জন্মদিবসে পালনে প্রাসঙ্গিক বক্তব্য রাখেন বিদ্যালয়ের প্রধান।তিনি বলেন, বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ বাঙালির প্রাণের ঠাকুর। বিশ্ব দরবারে তিনি পৌঁছে দিয়েছেন বাংলা ভাষাকে ।





 বিশ্ব তাকে সম্মান জানিয়েছে নোবেল প্রাইজ দিয়ে। এই লকডাউন পরিস্থিতিতেও আমরা কয়েকজন শিক্ষক শিক্ষিকা, শিক্ষাকর্মী, প্রাক্তন ছাত্র, বিদ্যালয়ের পরিচালন বিভাগের সদস্যরা উপস্থিত হয়েছি কবিগুরুর জন্মতিথি পালনের উদ্দেশ্যে। 

আশা রাখি আগামী বছর আমরা পূর্ণ মর্যাদায় এদিনটিকে পালন করতে পারবো। এরপর উপস্থিত বিদ্যালয়ের সহ শিক্ষক শিক্ষিকা শিক্ষাকর্মী প্রাক্তনীরা পরিচালন সমিতির সদস্যরা পুষ্পার্ঘ্য নিবেদন করে শ্রদ্ধাজ্ঞলি অর্পণ করেন।

 রবীন্দ্র রচনাবলি থেকে কবির দু:সময় কবিতাটি পাঠ করেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের জন্মদিবসের গান 'হে নূতন, দেখা দিক আরবার জন্মের প্রথম শুভক্ষণ' গানটি পরিবেশন করেন বিদ্যালয়ের শিক্ষক অম্লান দাশগুপ্ত। 

তবলায় সঙ্গতে ছিলেন শিক্ষক সমীর বন্দোপাধ্যায়। বিদ্যালয়ের প্রাক্তনী অলোক আচার্য কবিকে শ্রদ্ধা জানিয়ে স্বরচিত কবিতা কবিপ্রণাম আবৃত্তি করেন। এরপর দ্বৈত সংগীত সংকোচের বিহ্বলতা নিজেরে অপমান.. পরিবেশনে শিক্ষক অম্লান দাশগুপ্ত ও শিক্ষিকা জয়ন্তী দাস উপস্হাপনায় সাবলীল।



 শেষে রবীন্দ্র নাথ ঠাকুরের কবিতা সোনারতরী আবৃত্তি করেন বিদ্যালয়ের প্রাক্তনী অভিপ্রিয় বসু।
অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন বিদ্যালয়ের শিক্ষক অম্লান দাশগুপ্ত। দূরত্ব বজায় রেখে সংক্ষিপ্ত কবিপ্রণাম অনুষ্ঠানটি মনোজ্ঞ হয়ে ওঠে।

অন্যদিকে নিউ বারাকপুরে বিভিন্ন সংগীত শিল্পীরা ঘরে বসে গান গেয়ে বিশ্বকবিকে শ্রদ্ধার্ঘ জানান।

0/Post a Comment/Comments

Previous Post Next Post
Contact for advertising : 9831738670