ঈশ্বরতুল্য মানুষকেই শয়তান বানাচ্ছে এই সমাজ




@কম‌লে‌শের কলম।


*আজকে যারা ফুলের মতো শিশু কাল তারাই তো ভবিষ্যত। তাদের বিরাট একটা অংশের শিশুরাই তো বড় হয়ে অপরাধ জগতের কীট হয়ে উঠছে। পবিত্র শিশুদের কে বানাচ্ছে এমন করে?*

*এ প্রসঙ্গে একটি কাহিনী অনেকদিন আগে পড়েছিলাম কোনো এক সংবাদপত্রে। শিল্পী লিওনার্দো দ্য ভিঞ্চির শিল্পী জীবনের দুটি কাহিনীর কথা। একবার ঐ দেশের রাজা লিওনার্দোকে ডেকে তাঁকে ঈশ্বরের ছবি আঁকতে বললেন। রাজার আদেশ অমান্য করা যায় না। তিনি ঈশ্বরের প্রতিমূর্তি খুঁজতে খুঁজতে একটি শিশুর দেখা পেলেন। মুখে তার ঈশ্বরের সরলতা। নিষ্পাপ শিশুটিকে দেখে লিওনার্দোর মনে হল ঈশ্বরের দেখা তিনি পেয়ে গিয়েছেন! সেই শিশুর ছবি এঁকে রাজাকে দিয়ে তিনি বলেছিলেন, শিশুই ঈশ্বরের প্রতিভূ।*

*রাজা খুশি হয়ে লিওনার্দোকে বেশ কিছু অর্থ দিলেন। এরপর বহু বছর কেটে গিয়েছে। রাজা আবার লিওনার্দোকে ডেকে পাঠালেন। এবার তিনি চাইলেন এক শয়তানের ছবি। লিওনার্দো এবার খুব সমস্যায় পড়লেন। কোথায় পাবেন শয়তানের দেখা! একদিন নগরের পথে ঘুরতে ঘুরতে এক মাতালের সাথে দেখা। নর্দমায় পড়ে হাবুডুবু খাচ্ছে। লিওনার্দো ভাবলেন এতদিনে তিনি শয়তানের দেখা পেয়েছেন। মাতালটাই প্রকৃত শয়তান। ঈশ্বর তাই তাকে নর্দমায় ফেলে শাস্তি দিচ্ছেন। তিনি মাতালটাকে ডাঙায় তুলে হাত পা ধুইয়ে 'শয়তানের' ছবি আঁকতে শুরু করলেন।*

*মাতালটা জাতে মাতাল,তালে ঠিক।*
*লিওনার্দোকে জিজ্ঞেস করল,"তুমি কার ছবি আঁকছ?"*
*লিওনার্দো জানালেন,তিনি শয়তানের ছবি আঁকছেন,আর সেই শয়তানটা হল সয়ং সে।*
*মাতালটা আবার প্রশ্ন করে, "মনে পড়ে লিওনার্দো,বহু বছর আগে তুমি এক শিশুর ছবি এঁকেছিলে?"*
*লিওনার্দো জানালেন, "হ্যাঁ।সে ছিল ঈশ্বরের প্রতিভূ।"*
*মাতালটা বলে উঠল, "সেই শিশুটি ছিলাম আমি! এই সমাজই আমাকে আজ শয়তান বানিয়েছে।"*
*লিওনার্দোর শয়তানের ছবি আঁকা শেষ হয়েছিল কিনা জানি না।*
*এই জঙ্গলের রাজত্বে শয়তানরা আজও ঘোরে। এমনই শিশু হয়তো-বা একদিন হয়ে উঠবে এক একটি শয়তান। কিন্তু উপযুক্ত পরিবেশ পেলে এরাই হয়ে উঠতে পারে ভালো মানুষ,ঈশ্বরের প্রতিভূ। অনেক বছর কেটে গেল দেশ স্বাধীন হয়েছে। কতকগুলি অসাধু রাজনীতিকের হাতে পড়ে দেশটি হয়ে উঠছে নরকতুল্য। দেশের মঙ্গল করার মতো নেতার বড়ই অভাব। রাজনীতিটা হয়ে উঠেছে নেতাদের আখের গোছানোর ক্ষেত্র। ভারত আজ বহু শয়তানের বাসস্থান।*

0/Post a Comment/Comments

Previous Post Next Post
Contact for advertising : 9831738670