কলেজ অধ্যক্ষ তার স্ত্রীকে শারীরিক ও মানসিক অত্যাচার করে বালিশ চাপা দিয়ে খুনের চেষ্টা করার অভিযোগে গ্ৰেপ্তার,




কলেজ অধ্যক্ষ তার স্ত্রীকে শারীরিক ও মানসিক অত্যাচার করে বালিশ চাপা দিয়ে খুনের চেষ্টা করার অভিযোগে পুলিশ দীপঙ্কর মিশ্র  নামে গঙ্গারামপুর কলেজের অধ্যক্ষকে গ্রেপ্তার করেছে। 

চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি দক্ষিণ দিনাজপুর গঙ্গারামপুর পৌরসভার ৭ নাম্বার ওয়ার্ডের দুর্গাবাড়ি পাড়া এলাকায়। গঙ্গারামপুর কলেজের ওই অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে এর আগেও তার প্রথম পক্ষের স্ত্রীকে খুন করেছিল বলে অভিযোগ উঠেছিল।

 ফের দ্বিতীয় পক্ষের স্ত্রীর সঙ্গেও এমন অত্যাচার সহ খুনের চেষ্টার ঘটনা ঘটানোর এলাকার বাসিন্দারা ওই শিক্ষকের বাড়ির সামনে একত্রিত হয়ে বিক্ষোভ দেখিয়েছিল। পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে পুরো ঘটনা তদন্ত শুরু করেছে।


          পুলিশ জানায় গঙ্গারামপুর কলেজের অভিযুক্ত অধ্যক্ষের নাম দীপঙ্কর মিশ্র। তার বাড়ি গঙ্গারামপুর পৌরসভার ৭ নম্বর  ওয়ার্ডের দুর্গাবাড়ি পাড়ায়।সে বিভাগে কলেজে শিক্ষকতা করান ছাত্র-ছাত্রীদের বলে খবর।২০১২ সালে ওই অধ্যক্ষ দীপঙ্কর মিশ্র এর বিরুদ্ধে তার স্ত্রীকে খুন করার অভিযোগ উঠেছিল। তিনি মালদা তে বিয়ে করেছিলেন।

 আগের পক্ষে তার একটি ছেলে রয়েছে। প্রথম পক্ষের স্ত্রীর মামলায় তিনি সেই সময় জেল খেটেছিলেন। সেই সময় কলেজের অধ্যক্ষ চাকুরী থেকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত হয়েছিলেন। 

এর পরেই তিনি আবার গঙ্গারামপুর পৌরসভার আট নম্বর ওয়ার্ডের ইন্দ্র নারায়নপুর কলোনির রুপা সাহা (মিশ্র) বিয়ে করেন।
 অধ্যাপক এর স্ত্রী রুপা সাহা (মিশ্র এর) অভিযোগ বিয়ের পর থেকে তিনি সবসময় শারীরিক ও মানসিক অত্যাচার করে যাচ্ছেন। ঠিকমতো জিনিসপত্র এনে দেন না। প্রতিবাদ করাতে চলে মারধর। শুক্রবার রাত্রে মুখে বালিশ চাপা দিয়ে খুনের চেষ্টা করেছিল। 

কোনরকম জীবন বেঁচে গিয়ে গ্রামবাসীদের বিষয়টি জানানো হয়।
এর পরেই গ্রামবাসীরা এমন ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে অধ্যাপকের বাড়ির সামনে বিক্ষোভ দেখান।

 ঘটনাস্থলে পুলিশ ছুটে যায়।রাতেই অধ্যাপক স্ত্রী তার স্বামীর বিরুদ্ধে বধূ নির্যাতন ও বালিশ চাপা দিয়ে খুনের চেষ্টার অভিযোগ জানালে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসে।
গঙ্গারামপুর থানার আইসি পূর্ণেন্দু কুমার কুন্ডু জানিয়েছেন, লিখিত অভিযোগ পেয়ে দীপঙ্কর মিশ্র নামে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। পুরো ঘটনার তদন্ত শুরু করা  হয়েছে।


ফের কলেজ অধ্যাপকের বিরুদ্ধে এমন ঘটনা নিন্দার ঝড় বইছে শহর জুড়ে। শোরগোল পড়েছে এলাকাজুড়ে।

0/Post a Comment/Comments

Previous Post Next Post
Contact for advertising : 9831738670