অসহায় মমতার পাশে যুব তৃণমূল নেতা।

মালদা , নিজস্ব প্রতিবেদক : 

 অসহায় অন্ধ মমতা দাস এর পাশে দাঁড়ালেন হরিশ্চন্দ্রপুর এর যুব তৃণমূল নেতা বুলবুল খান। 




এদিন সকালে অন্ধ মমতা দাস এর বাড়ি যান বুলবুল খানের প্রতিনিধি হিসাবে তার ভাই তথা সুলতান নগর গ্রাম পঞ্চায়েতের উপপ্রধান গুড্ডু খান ও তৃণমূল নেতা মনোতোষ ঘোষ ।

 তারা মমতা দেবী হাতে আর্থিক সাহায্য হিসেবে ১০০০০ টাকা দুটি কম্বল ও কুড়ি কিলো চাল তুলে দেন। এ প্রসঙ্গে গুড্ডু খান জানান তারা যুব তৃণমূল নেতা বুলবুল খানের নির্দেশে মমতা দাস এর হাতে এই আর্থিক সাহায্য তুলে দিচ্ছেন।

 ভবিষ্যতে তার জন্য আরো কিছু করা যায় কিনা সে ব্যবস্থাও তারা খতিয়ে দেখবেন।

 ঘটনাক্রমে হরিশ্চন্দ্রপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের বারোডাঙ্গা গ্রামের মমতা দাস ছোট বয়সেই শিঙি মাছের কাঁটা ফুটে বিষক্রিয়ার জেরে দু চোখে অন্ধ হয়ে যান। তার দিনমজুর বাবা-মা আর্থিক অভাবে তার চিকিৎসা বেশিদূর করাতে পারেননি। 




বর্তমানে তার বাবা-মা দুজনেই বৃদ্ধ। মমতার বাকি ভাই-বোনরা আলাদা থাকে।

 অন্ধ মমতাকে দেখার কেউ নেই। তার বৃদ্ধ বাবা মা তার চিকিৎসার খরচ এবং সংসারের খরচ জন্য এখনো দিনমজুরি করেন। মমতার প্রতিবন্ধী সার্টিফিকেট থাকা সত্ত্বেও সরকারি সুযোগ-সুবিধা পায়নি। 

তাই তিনি গতকাল প্রশাসনের কাছে আত্মহত্যার আবেদন জানান।খবরটি জানতে পেরেই এলাকার তৃণমূল নেতা বুলবুল খান প্রতিনিধি পাঠিয়ে মমতা দেবীকে সাহায্য পাঠানো হয়। 

এ প্রসঙ্গে মমতা দাস জানিয়েছেনবুলবুল বাবুর সাহায্য পেয়ে তিনি কৃতজ্ঞ। তিনি চান তাকে মাসিক হাজার টাকা ভাতার ব্যবস্থা করা হোক এবং একটি কাজের ব্যবস্থা করা হোক।

0/Post a Comment/Comments