পরিবেশ বান্ধব বইমেলার উদ্বোধন হল হাওড়ায়



নিজস্ব সংবাদদাতা, হাওড়া: 

 ৩১ তম হাওড়া জেলা বইমেলা উদ্বোধন হল সোমবার ব্যাঁটরা সম্মিলনী মেলা প্রাঙ্গনে। মেলা চলবে ১৯ শে জানুয়ারি পর্যন্ত।এবারে হাওড়া জেলা বইমেলা প্লাস্টিক মুক্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বইমেলা কমিটি। বইমেলার মূল থিম 'ভালবাসার মেল বন্ধনে গড়ে উঠুক নতুন বিশ্ব'। রাজ্যের জনশিক্ষা প্রসার ও গ্রন্থাগার পরিষেবা দপ্তরের পৃষ্ঠপোষকতায় হাওড়া জেলা বইমেলায় নামী প্রকাশনার নতুন বই-এর সম্ভার ছাড়াও জেলার নতুন নতুন লেখকের আত্মপ্রকাশ ঘটবে। এবারে স্থানীয় গ্রন্থাগার কৃত্যক, হাওড়ার উদ্যোগে আয়োজিত হাওড়া জেলা বইমেলার উদ্বোধন করেন রাজ্যের সমবায় দপ্তরের মন্ত্রী অরূপ রায়। বিশেষ সম্মানীয় অতিথি হিসাবে ছিলেন বিশিষ্ট প্রাবন্ধিক নলিনী বেরা। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ছিলেন হাওড়া জেলা পরিষদের সভাধিপতি কাবেরি দাস, সহ সভাধিপতি অজয় ভট্টাচার্য, হাওড়ার এডিএম(পঞ্চায়েত) প্রভাকর উকিল, বইমেলা কমিটির সম্পাদক ও জেলা গ্রন্থাগার আধিকারিক বিদ্যুৎ দাস, বইমেলা কমিটির সদস্য তাপস চক্রবর্তী সহ বহু বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন হাওড়া জেলা গ্রন্থাগারিক অমিত পাল।মন্ত্রী অরূপ রায় বলেন, “বই আমাদের সকলের। আমাদের অক্ষরজ্ঞান শুরু হয় বইয়ের মাধ্যমে। ছাত্রজীবন থেকে শুরু করে কর্মজীবন বইয়ের সঙ্গেই আমাদের সম্পর্ক। কিন্তু বর্তমান প্রজন্মের মধ্যে বই পড়ার প্রতি অনীহা লক্ষ্য করা যাচ্ছে। কিছু ক্ষেত্রে ব্যতিক্রম থাকলেও আজকে ইন্টারনেট ওয়েবসাইটের যুগে বই পড়ার প্রবণতা তেমনভাবে লক্ষ্য করা যাচ্ছে না। বই পড়ার আকর্ষণ তৈরি হোক এই আবেদন রাখব।” মেলা কমিটির সম্পাদক ও জেলা গ্রন্থাগার আধিকারিক বিদ্যুৎ দাস জানিয়েছেন, এবারের বইমেলা পরিবেশ বান্ধব বইমেলা হিসাবে রূপ দিতে বইমেলাকে সম্পূর্ণ প্লাস্টিকমুক্ত করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বইমেলায় কলকাতার খ্যাতনামা প্রকাশকরা অংশ নিয়েছেন। ৭০ টি স্টল হয়েছে মেলায়। প্রতিদিনই আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হবে মেলায়। মানুষকে গ্রন্থমুখী করতে জেলার সরকারি, সরকার পোষিত, বেসরকারি সমস্ত গ্রন্থাগারকেও বইমেলাতে অংশ নেবেন।

0/Post a Comment/Comments