18দিন লড়াই করে অবশেষে মৃত্যু বরণ করলেন, উলুবেড়িয়ার নার্গিস বেগম,

নিজস্ব প্রতিবেদক, উলুবেড়িয়া,




 অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় টানা 18দিন মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন, কিন্তু অবশেষে মৃত্যুর কাছে হার মানতে হলো এক সন্তানের জননী 22বৎসরের গৃহবধূ নার্গিস বেগম কে,

 গত 2017সালের 20মে ধুলাসিমলার মতিয়ার রহমান খাঁনের মেয়ে নার্গিসের সহিত উলুবেড়িয়া র আলপুকুরের সেখ সহিদুল্লার বিবাহ হয় , 




বর্তমানে নার্গিসের একটি পুত্র সন্তান হয়,বয়স মাত্র দেড় বৎসরের,নাম আবির, গত ইংরেজি 27শে ডিসেম্বর এবং 28শে ডিসেম্বর 2019, 

নার্গিস বেগম তার বাবা মতিয়ার রহমান খান কে ফোনে জানান যে তার শ্বশুর বাড়ি থেকে তার উপর মারধর করছে টাকার দাবিতে,। 

পরে  গত 29শে ডিসেম্বর সেখ সহিদুল্লা ফোন করে শ্বশুর বাড়ি তে জানান যে  নার্গিস বেগম  উলুবেড়িয়া মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি আছে, 




তৎক্ষণাৎ মতিয়ার রহমান খানের পরিবারের লোকেরা উলুবেড়িয়া মহকুমা হাসপাতালে গিয়ে দেখে অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় উলুবেড়িয়া মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি আছে,অবস্থার অবনতি হওয়ায় কলকাতার বাঙ্গুরা হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়, 

সেখানে দীর্ঘ 18দিন  মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করে অবশেষে মৃত্যু বরণ করেন,




 গত ইংরেজি 1লা জানুয়ারি 2020তে উলুবেড়িয়া থানায় মতিয়ার রহমান খান লিখিত অভিযোগ করেন, 

এখনও পর্যন্ত সেখ সহিদুল্লা ও তার পরিবার পলাতক বলে জানা গেছে,

0/Post a Comment/Comments

Previous Post Next Post
Contact for advertising : 9831738670