মৃত্যু হল এক পার্শ্ব শিক্ষকের, চলছে রাজনৈতিক দাবি,

মালদা, ২৮ নভেম্বর,



 ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হল এক পার্শ্ব শিক্ষকের। 

মঙ্গলবার কলকাতার একটি বেসরকারি নার্সিংহোমে মোঃ আব্দুল মাজিদ/৫৬ নামে ওই পার্শ্বশিক্ষক মারা যান বলে পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে।

 তিনি প্রায় চার মাস ধরে লিভার ক্যান্সারে ভুগছিলেন। প্রথমে তাকে মুম্বাইয়ে ক্যান্সার হাসপাতাল চিকিৎসা করান পরিবারের লোকজন।

 পরে তাকে কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।




 তবে তার শারীরিক অবস্থার আরো অবনতি হলে মঙ্গলবার সকালে ওই নার্সিংহোমের চিকিৎসকরা তাকে ছুটি দিয়ে দেন। 

মঙ্গলবার গভীর রাতেই ট্রেন ধরে বাড়ি আসার পথেই মৃত্যু হয় ওই পার্শ্ব শিক্ষকের। 

যদিও ওই পার্শ্ব শিক্ষকের মৃত্যুতে লেগেছে রাজনীতির রং। সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তীর দাবি ওই পার্শ্বশিক্ষক কলকাতার অনশন মঞ্চে যোগ দিয়েছিলেন। 

মঞ্চেই অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। অবশেষে বাড়ি ফেরার পথেই ওই শিক্ষকের মৃত্যু হয়েছে।

 যদিও মৃতের পরিবারের লোকজন অনশন মঞ্চে যাওয়ার ঘটনাটি অস্বীকার করেন। 



মৃতের ছেলে নাঈমুল হক জানান, বাবা ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়েছিলেন চার মাস আগে। 

কলকাতার মুকুন্দপুরের একটি নার্সিংহোমে তার চিকিৎসা চলছিল।

 মঙ্গলবার চিকিৎসক ছুটি দিয়ে দিয়েছিলেন। বাড়ি আসার পথেই মৃত্যু হয়েছে তার। অনশন মঞ্চে যাওয়ার ঘটনাটি সম্পূর্ণ উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। 

বর্তমানে ওই শিক্ষকের বাড়িতে স্ত্রী সহ চার কন্যা ও তিন পুত্র সন্তান রয়েছে।স্কুল সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই পার্শ্বশিক্ষক কড়িয়ালি চক্রের বড়োল প্রাথমিক স্কুলে পার্শ্বশিক্ষক ছিলেন। 

২০২৩ সালে তিনি অবসর নিতেন। ওই স্কুলের সহকারী শিক্ষক মোঃ আকরাম হোসেন জানান, ওই পার্শ্বশিক্ষক আমাদের স্কুলে কর্মরত ছিলেন। 

কয়েক মাস ধরে ক্যান্সার রোগে ভুগছিলেন। শুনেছি মঙ্গলবার রাতে বাড়ি আসার পথে মৃত হয় আব্দুল মজিদের

0/Post a Comment/Comments

Previous Post Next Post
Contact for advertising : 9831738670