সকালে ‘সেফ ড্রাইভ, সেভ লাইফ’ নিয়ে প্রচার আর বিকালে বিজেই হেলমেট ছাড়া মোটরবাইক চালিয়ে বিতর্কের মুখে পড়লেন এক তৃণমূল নেতা।




সকালে ‘সেফ ড্রাইভ, সেভ লাইফ’ নিয়ে প্রচার আর বিকালে বিজেই হেলমেট ছাড়া মোটরবাইক চালিয়ে বিতর্কের মুখে পড়লেন এক তৃণমূল নেতা। পুরো বিষয়টি নিয়ে বুলবুলচণ্ডী গ্রাম পঞ্চায়েতের তৃণমূল প্রধান রাজীব দাগার মন্তব্য পাওয়া না গেলেও তাঁর এই আচরণে দল যে অস্বস্তিতে পড়েছে তা স্বীকার করছেন দলীয় কর্মীরাই। 

উল্লেখ্য, সম্প্রতি মালদা সফরে এসে পথ দুর্ঘটনার সংখ্যা কমাতে পুলিশকে সেফ ড্রাইভ সেভ লাইফ প্রচারে ঝাঁপাতে নির্দেশ দিয়ে গেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানারজি। তারপর থেকেই বিভিন্ন থানা এই স্লোগানকে সামনে রেখে বিভিন্ন উদ্যোগ নিয়েছে। 




শুক্রবার মালদা – নালাগোলা রাজ্য সড়কে হেলমেট বিহীণ মোটরবাইক চালকদের লজ্জায় ফেলে দেয় পুলিশের একটি কর্মসূচী। আইন ভাঙা মোটরবাইক আরোহীদের হেলমেট ও গোলাপ ফুল তুলে দেয় খুদেরা।

 ওই অনুষ্ঠানে ছিলেন তৃণমূল নেতা ওই পঞ্চায়েত প্রধান। নিরাপদে বাইক চালানোর জন্য হেলমেট ব্যবহারের পরামর্শও দেন তিনি। কিন্তু তৃণমূলের বিধানসভা উপনির্বাচনের সাফল্য পালন করতে গিয়ে একটি মিছিলে বিকালে ওই তৃণমূল নেতাকে বাইকে দেখা যায় হেলমেট ছাড়াই। 





এক তৃণমূল কর্মীকে এই কথা বলা হলে তিনি বলেন, আমাদের প্রধান হেলমেট পড়তে ভুলে গেছেন। কিন্তু যিনি সকালে অন্যদের জ্ঞান দিলেন তিনি নিজেই কি করে এই ভুল করেন তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। 

ওই প্রধান অবশ্য নিজের ভুল ঘনিষ্ঠ মহলে স্বীকার করে নিয়েছেন বলে জানা গেছে। আগামীতে তিনি হেলমেট পড়ার বিষয়ে সতর্ক থাকবেন বলেও জানিয়েছেন দলীয় সতীর্থদের।

0/Post a Comment/Comments

Previous Post Next Post
Contact for advertising : 9831738670