অনাহারে 5সন্তান কে নিয়ে আত্মহত্যা র ইচ্ছা প্রকাশ করলেন পপি রবিদাস।

নিজস্ব প্রতিবেদক, 

মালদা।



 বছর খানেক আগেও মৃত্যুর কথা মুখে আনতেন না। ঘরে সুখ না থাকলেও দুমুঠো অন্ন জুটতো। 

কিন্তু স্বামীর মৃত্যুর পর অভাব যেন তার নিত্য সঙ্গী হয়ে উঠেছে।

দেড় বছর ধরেই প্রায় অভুক্ত অবস্থায় রয়েছেন তিনি। শুধু তিনি নয় তাঁর পাঁচ শিশু সন্তানও থাকছে অনাহারে। 

গ্রামের পাড়া প্রতিবেশীরা মাঝে মধ্যে নিজেদের বাড়তি অন্ন দিয়ে সাহার্য্য করে বাঁচিয়ে রেখেছেন এই পপি রবিদাস ও তার পাঁচ সন্তানকে।কিন্তু সেই সাহার্য্যের হাতও আজ ক্লান্ত। 

তার উপর মাথার আস্তানাটাও আজ নেই।ভেঙে পড়েছে এক চালার ঘরটি। ফলে খোলা আকাশের নীচে গাছের গুঁড়ির তলায় মাথা গুঁজে রয়েছেন তাঁরা। কালিয়াচক ৩নং ব্লকের ভারত বাংলাদেশ সীমান্ত এলাকা গোপালনগর গ্রামে পপি রবিদাসের করুণ কাহিনী সত্যিই সরকারী প্রকল্প কার্যকারিতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিচ্ছে।




এই এলাকার পঞ্চায়েত সদস্য হারাধন রজক পপি রবিদাসের জন্য সরকারী প্রকল্পের মাধ্যমে সুবিধা পাইয়ে দিতে পঞ্চায়েত দপ্তর থেকে ব্লক দপ্তরে প্রস্তাব পাঠিয়েছেন।

 কিন্তু কোন কাজ হয় নি। ব্যর্থ হয়ে বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার দ্বারে সাহার্য্যের জন্য আবেদন করেছেন। 

পপি রবি দাস জানান দেড় বছর আগে অসুস্থ হয়ে স্বামী মৃত্যু হয়।

 ভিন রাজ্যে শ্রমিকের কাজ করতো। ফলে আর্থিক সঞ্চয় তেমন নেই। বিশাল(১৩)রানি(৮)রাখি(৭)রাজদীপ(৩)ও শুভজীত(২)তাঁর এই পাঁচ সন্তান। আর্থিক অভাব। 

তাই স্কুলের পাঠও এদের নেই। সীমান্ত এলাকার গ্রাম। ফলে কাজও নেই। তাই বাধ্য হয়ে কার্যত অনাহারে চলছে তাদের দিন। 

মাঝে মধ্যে হতদরিদ্র গ্রামের বাসিন্দারা তাদের বাড়তি অন্ন দিয়ে সাহার্য্য করছেন। 

কিন্তু সেই সাহার্য্যের হাতও কান্ত। গ্রামবাসীরা সাহার্য্যের আর্জি নিয়ে পঞ্চায়েত দপ্তরে আবেদনও করেছেন। কিন্তু কিছুই সাহার্য্য জোটে নি। 

পপি রবিদাস আরো অভিযোগ করে বলেন মাস আটেক আগে একবার কিছু চাল ও ১২০টাকা সাহার্য্য পেয়েছিলেন। তারপর থেকে আর কিছুই পান নি। 

মাথার আস্তানাও ভেঙে পড়ে গেছে। খোলা আকাশে নীচে গাছের গুঁড়ির তলাতে বসবাস করছেন। এইভাবে আর বেশীদিন বেঁচে থাকা কষ্টকর। তাই তিনি তাঁর সন্তানদের নিয়ে আত্মঘাতী হওয়ার কথা ভাবছেন।

রাজ্যে তৃণমূল কংগ্রেস সরকারের নানা প্রকল্প থাকা স্বত্ত্বেও এইসব প্রকল্প থেকে বঞ্চিত কেন পপি রবিদাস? তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। 

যদিও এই বিষয় নিয়ে সরকারী কোন আধিকারিক কোন প্রতিক্রিয়া দিতে অস্বীকার করেছেন।

0/Post a Comment/Comments

Previous Post Next Post
Contact for advertising : 9831738670