মালতিপুর বিধানসভা কেন্দ্রের তৃণমূলে যোগদান কর্মসূচি।




মালদা, ০৬  সেপ্টেম্বর । 

 বিজেপি , কংগ্রেস আশ্রিত দুষ্কৃতীদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ দলীয় শতাধিক কর্মী সমর্থকেরা প্রতিবাদ জানিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করলেন। 



রবিবার বিকেলে রতুয়া ২ ব্লকের শ্রীপুর ১ গ্রাম পঞ্চায়েতের মাগুরা এলাকার একটি লাইব্রেরী প্রাঙ্গণ মাঠে এই যোগদান কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। এদিনের এই যোগদান কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের জেলা সভাপতি তথা সাংসদ মৌসুম নূর, মালতিপুর বিধানসভা কেন্দ্রের কোডিনেটর তথা প্রাক্তন বিধায়ক রহিম বক্সী, তৃণমূলের জেলা সভাপতি প্রসেনজিৎ দাস সহ অন্যান্য নেতারা ।

এদিন মাগুরা এবং মহারাজপুরের শতাধিক কর্মী-সমর্থকেরা বিজেপি এবং কংগ্রেসের দলীয় নেতাদের হাত ধরেই তৃণমূলে যোগদান করেন শতাধিক কর্মী সমর্থকেরা। তাঁদের হাতে দলের ঝান্ডা তুলে দেন প্রাক্তন বিধায়ক তথা মালতিপুর বিধানসভা কেন্দ্রের কোডিনেটর রহিম বক্সী। 

যদিও স্থানীয় বিজেপি এবং কংগ্রেস দল ছেড়ে তৃণমূলে যোগদানের বিষয়ে এলাকার ওই দলের নেতৃত্ব বিষয়টি জানা নেই বলেই দাবি করেছেন।


এদিন মাগুরা এলাকার শক্তি সংঘ লাইব্রেরী প্রাঙ্গণ মাঠেই তৃণমূলে যোগ দান কর্মসূচী অনুষ্ঠিত হয়। এদিন প্রায় ৫০০ জন কর্মী সমর্থক এবং নেতারা বিজেপি ও কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূলে যোগদান করেছেন । 

স্থানীয় এক কংগ্রেস নেতা তথা শ্রীপুর ১ গ্রাম পঞ্চায়েতের পঞ্চায়েত সদস্য শাহজাহান বাদশা বলেন, এতদিন কংগ্রেস দল করে নূন্যতম যোগ্যতা টুকু মেলে নি। বিভিন্ন সমস্যা নিয়েই দলের দক্ষিণ মালদার সাংসদ আবু হাসেম খান চৌধুরী এবং জেলা নেতৃত্বের কাছে গেলেও তাদের সাথে দেখা করা যায় না। দলের কর্মী-সমর্থকদের সমস্যা সমাধানের ক্ষেত্রে জেলা নেতৃত্ব কোনদিনই আমল দেয় নি । রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীর উন্নয়ন দেখে মানুষ এখন ওই দলে যোগদান করে কাজ করতে চাইছে । আমরা তৃণমূলের সৈনিক হিসাবে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য আজকে যোগদান কর্মসূচিতে অংশ নিয়েছি।

স্থানীয় বিজেপি নেতা কর্মীদের  যোগদান কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করার পর তাঁদের বক্তব্য , ওই দলের মাতব্বরদের অত্যাচারে আমরা অতিষ্ঠ। ওই দল কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছে না । রাজ্য সরকার যেভাবে উন্নয়নমূলক কাজ করছে গ্রামীণ এলাকায় । তাতেই সামিল হতে চাই । আমরা মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির পাশে থেকে সৈনিক হিসাবে এদিন তৃনমূলে যোগদান করেছি।

রতুয়া ২ ব্লকের অন্তর্গত মালতিপুর বিধানসভা কেন্দ্রের তৃণমূল দলের কোডিনেটর তথা প্রাক্তন বিধায়ক রহিম বক্সী বলেন, ওরা মুখে যতই বলুক একুশে সরকার গঠন করবে, ওদের এই ধারণা কখনোই মানুষ সমর্থন জানাবে না। কংগ্রেস এবং বিজেপির দলীয় কোন্দল এবং ওদের দলের আশ্রিত মাতব্বরদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে এখন তৃণমূলে শয়ে শয়ে কর্মী-সমর্থক, নেতারা যোগদান করছেন। আমরা তাদের দলে সুসম্মানে স্বাগত জানাচ্ছি। এদিন মাগুরা এলাকায় প্রায় ৫০০ নেতাকর্মী ও সমর্থকরা বিজেপি এবং কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূলে যোগদান করেছেন। তাদের হাতে দলীয় ঝান্ডা তুলে দেওয়া হয়েছে । আগামীতে দলের এই এলাকার সাংগঠনিক  বৃদ্ধি হলো। 

0/Post a Comment/Comments

Previous Post Next Post
Contact for advertising : 9831738670