মেয়ের জন্মদিনের টাকায় 200পরিবারকে সাহায্য,




বাবাই সূত্রধর,দক্ষিণ দিনাজপুর,৪ এপ্রিল;


করোনা আতঙ্কের মধ্যে মেয়ের জন্মদিন পালন না করে সেই টাকা দিয়ে গরিব ২০০ বেশি মানুষজনদের জন্য চাল, আলু, সাবান বিলি করে মহান কাজে ব্রতী হলো এক আইনজীবী দম্পতি পরিবার।

 দক্ষিণ দিনাজপুরের গঙ্গারামপুর পৌরসভার ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের সুভাষপল্লী বাসিন্দা আইনজীবী দম্পতি পরিবারের সদস্যরা শনিবার বিকেলে বিধায়ক, চেয়ারম্যান,ভাইস চেয়ারম্যান সহ একাধিক বিশিষ্টজনদের হাত দিয়ে তার বাড়িতেই মানুষজনের হাতে জিনিসপত্র তুলে দেন।





অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে এমন দিনে গরিব মানুষদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য আইনজীবী দম্পতি পরিবারের সদস্যদের আন্তরিক অভিনন্দন জানিয়েছেন সকলেই।

 এবার জন্মদিন পালন না করে এমন দান করে ভালো লাগছে বলে আইনজীবী দম্পতি জানিয়েছেন। খুশি হয়েছেন এমন সহযোগিতা পাওয়া এলাকার বাসিন্দারা।


         গঙ্গারামপুর পৌরসভার ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের সুভাষপল্লী বাসিন্দা আইনজীবী দম্পতি প্রিয়জিৎ চক্রবর্তী ও রাখি চক্রবর্তী (বস) দুজনই বুনিয়াদপুর মহকুমা আদালতে আইনজীবী হিসেবে বহুদিন ধরেই সেই পেশার সঙ্গে যুক্ত রয়েছে।

 আইনজীবীর পরিবার সূত্রে খবর, প্রিয়জিৎ বাবুর মা , দুই মেয়ে ও তার এক ছেলেকে নিয়ে তাদের সংসার। ৪ এপ্রিল আইনজীবী প্রীয়জিৎ বাবু ছোট মেয়ে সুদীপ্তা চক্রবর্তী জন্মদিন রয়েছে।




 প্রতিবছর আইনজীবী দম্পতি পরিবারের সদস্যরা একটু অন্য রকম ভাবেই তাদের মেয়ের জন্মদিন চক্রবর্তী পরিবারের সদস্যরা ধুমধাম করে পালন করে।

এবছর করোনা আতঙ্কের মধ্যে তাই মে সুদীপ্তা চক্রবর্তীর জন্মদিন পালন না করে তারা এবার মহান কাজে ব্রতী হওয়া সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। 

শুক্রবার তাই ১৬ নম্বর ওয়ার্ডে ঘুরে ঘুরে আইনজীবী দম্পতি প্রীয়জিৎ চক্রবর্তী, রাখি চক্রবর্তী মানুষজনদের শনিবার চাল,আলু , সাবান বিলি করার জন্য টকন বিলি করে আসেন যার যার বাড়িতে গিয়ে। আইনজীবী দম্পতির আহবানে সাড়া দিয়ে শনিবার সকালে এমন অনুষ্ঠানে হাজির হয়েছিলেন গঙ্গারামপুর এর বিধায়ক গৌতম দাস, গঙ্গারামপুর পৌরসভার চেয়ারম্যান অমলেন্দু ভূষণ সরকার, ভাইস চেয়ারম্যান রাকেশ পন্ডিত, ১৭ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর তথা সমাজসেবী অশোক বর্ধন, সমাজসেবী নবীন দাস থেকে শুরু করে বহু বাসিন্দারা সেখানে হাজির হয়েছিলেন। 




তাদের হাত দিয়েই শনিবার দুপুরে গঙ্গারামপুর পৌরসভার ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের সুভাষপল্লী আইনজীবী দম্পতির বাড়িতে একটি অনুষ্ঠান করে ২০০ জনের উপরে এলাকার দুস্থ মানুষজনদের চাল, আলু, সাবান তুলে দেওয়া হয়। তবে দূরত্ব বজায় রেখে সমস্ত নিয়ম মেনেই তা বিলি করা হয়।


মেয়ের জন্মদিন পালন না করে এমন সময় মানুষজনদের পাশে দাঁড়িয়ে আইনজীবী রাখি চক্রবর্তী (বোস) জানালেন, এমন দিনে মানুষজনের পাশে দাঁড়াতে এমন উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।


জন্মদিন পালন না করে এমন সহযোগিতা গ্রামবাসীদের করা হচ্ছে সেই আইনজীবীর মেয়ে সুদীপ্তা চক্রবর্তী জানালেন, সত্যিই খুবই ভালো লাগলো যতটা পারলাম তাদের সহযোগিতা জিনিসপত্র তুলে দিলাম।


গঙ্গারামপুর এর বিধায়ক গৌতম দাস ও পৌরসভার চেয়ারম্যান অমলেন্দু ভূষণ সরকার জানালেন, এমন দিনে মেয়ের জন্মদিন পালন না করে সকলের মুখে এক মুঠো অন্ন তুলে দিয়েছে। তাই তাদের এমন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানাই।


কাউন্সিলর তথা বিশিষ্ট সমাজসেবী অশোক বর্ধন জানিয়েছে, মহান কাজে ব্রতী হওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়াই আইনজীবী দম্পতিকে ধন্যবাদ জানাই।





এমন দিনে সাহায্য পাওয়ার পরে এক এলাকাবাসী মিনতি সরকার জানিয়েছে, জন্মদিন পালন না করে তাদের যে উদ্যোগ নেবার ফলে আমরা যে সাহায্য পেলাম তাদের তাদের ধন্যবাদ জানাই।

0/Post a Comment/Comments

Previous Post Next Post
Contact for advertising : 9831738670