করোনা মোকাবিলায় যাদের স্যালুট করতে হয় তাঁদের মধ্যে অন্যতম স্বাস্থ্যকর্মী ও পুলিশ প্রশাসন,



নিজস্ব প্রতিবেদক, হাওড়া,

করোনা ভাইরাসে জেরে উত্তাল গোটা বিশ্ব।তরতর করে বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যা। আক্রান্তের সংখ্যাও  বাড়ছে হুহু করে। বিদেশিদের এই রোগ আছড়ে  পড়েছে আমাদের দেশ ভারতবর্ষেও।

তবে এ বিষয় কেন্দ্র ও রাজ্যসরকারের ভূমিকা যথেষ্ট ইতিবাচক।তবে এই রোগ মোকাবিলায় যাদের স্যালুট করতে হয় তাঁদের মধ্যে অন্যতম স্বাস্থ্যকর্মী ও পুলিশ প্রশাসন।তাঁদের ভূমিকা কখনওই অস্বীকার করা যাবে না।
এর মোকাবিলায় রাজ্যের প্রতিটি জেলার মত হাওড়া জেলাতেও সক্রিয় পুলিশ প্রশাসন।কারন সরকারি নির্দেশিকা অনেকে অমান্য করছেন।




কিন্তু হাওড়া সিটি পুলিশ অত্যন্ত দক্ষতায় এর মোকাবিলা করছে।রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নির্দেশ দিয়েছেন  একান্ত দরকার ছাড়া কেউ বাড়ির বাইরে বেরোবেন না।

পাশাপাশি তিনি আরও বলেছেন খুব দরকারে বাইরে বেড়োলে একে অপরের সঙ্গে নিদ্দির্ষ্ট্ দূরত্ব বজায় রাখবেন।তাই বুধবার হাওড়া পুলিশ কমিশনারেট এলাকার লকডাউন থেকে ছার দেওয়া দোকানের সামনে একে অপরের সঙ্গে দূরত্ব বজায় রাখার জন্য  পুলিশ চক ও চুন দিয়ে সার্কেল করে দিল।

সেখানে দাঁড়িয়ে লাইন দিয়ে দূরত্ব বজায় রেখে জিনিসপত্র কিনলেন জনতা।পুলিশ সূত্রে খবর,  যাতে রেশন কিংবা মুদিখানার দোকানের সামনে কেউ একসাথে জটলা বেধে না থাকতে পারে তাই এই উদ্যোগ । এর প্রধান উদ্দেশ্য  যাতে করোনা ভাইরাস একজনের থেকে আরএকজনের শরীরে প্রবেশ করতে না পারে। 

হাওড়া সিটি পুলিশের এই ভূমিকা যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ।ইতিমধ্যেই বিশেষজ্ঞ মহল থেকে শুরু করে জনগণ এখন পুলিশের প্রশংসায় পঞ্চমুখ।'

0/Post a Comment/Comments

Previous Post Next Post
Contact for advertising : 9831738670