-স্ত্রী’‌র সঙ্গে এক যুবকের বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক। তার জেরে জেরে স্ত্রীকে খুন,

মালদা-




স্ত্রী’‌র সঙ্গে এক যুবকের বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক। তার জেরে জেরে স্ত্রীকে খুন করা হয়েছে বলে অভিঅযোগ। 

মেলায় ঘুরতে নিয়ে গিয়ে ওই মহিলাকে ব্যাপক মারধরের পর শ্বাসরোধ করে খুন করা হয়েছ। পরে আমগাছের ডালে ফাঁসে ঝোলানের অভিযোগ তাঁর প্রেমিকের বিরুদ্ধে।

 থানায় অভিযোগ করেছেন মৃত মহিলার স্বামী। পুলিশ অভিযুক্ত প্রেমিককে খুঁজছে। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ভূতনি থানা এলাকার।




 পুলিশ জানিয়েছে, মৃতার নাম অনিতা মন্ডল(‌৩৭)‌। ভূতনি থানার স্বার্থকটোলা গ্রামে বাড়ি তাঁর।

 স্বামী জয়ন্ত মন্ডল পেশায় মজুর। মাস কয়েক ধরে তিনি যক্ষ্মারোগে আক্রান্ত। তাঁর চিকিৎসা চলছে। তাঁদের ৪ ছেলে-‌মেয়ে।

 পুলিশ জানিয়েছে, অভিযুক্ত প্রেমিকের নাম মিলন মন্ডল। সংশ্লিষ্ট থানার শঙ্করটোলা বাঁধ এলাকায় বাড়ি তাঁর। সেও বিবাহিত। তারপরেও বছর খানেক ধরে তাঁদের বিবাহ বহির্ভূত প্রেমের সম্পর্ক। 

অভিযোগ, মাস ছয়েক আগে অনিতা অভিযুক্ত মিলনের সঙ্গে দিল্লি পালিয়ে যান। তারপর কিছুদিন পরে আবার নিজের সংসারে ফিরে আসেন। 

তারপরেও ফোনে তাঁদের যোগাযোগ ছিল বলে অভিযোগ। জানা গেছে, এলাকায় সরস্বতী পুজো উপলক্ষ্যে মেলা চলছে। অনিতা রাত ৯টা নাগাদ মেলা যাচ্ছেন বলে একাই বাড়ি থেকে বেরোন। গভীর রাতেও ফিরছেন না দেখে খোঁজাখুঁজি শুরু করেন পরিবারের লোকেরা।

 মঙ্গলবার সকালে বাড়ি থেকে খানিকটা দূরে আমগাছের ডালে তাঁর ফাঁসে জড়ানো দেহ দেখেন স্থানীয়রা। গলায় তাঁর ওর্ণা জড়ানো ছিল। এদিকে, মাটিতে হাঁটু ভাজ করা অবস্থায় দেখে সন্দেহ বাড়িয়েছে পরিবারের লোকেদের।

 স্বামী জয়ন্ত মন্ডল অভিযোগ করে বলেন,‘‌অভিযুক্ত মিলনের নামে আরও অভিযোগ রয়েছে। নিজে বিবাহিত হওয়ার পরও অন্য মহিলাদের সঙ্গে তার সম্পর্ক ছিল। আমাদের পরিবারে ওর জন্যই ঝামেলা লেগেই ছিল। স্ত্রীকে বকাঝকা করার পরও ফোনে ওদের মধ্যে যোগাযোগ ছিল।’‌ 




তিনি আরও অভিযোগ করে বলেন, ‘‌আমি নিশ্চিত, মিলনই আমার স্ত্রীকে ফোন করে ডেকে নিয়ে মেলায় যায়। 

সেখানে ব্যাপক মারধর করে বলে পরে আমরা জানতে পেরেছি। স্ত্রী’‌র কাপড়ে কাদা লেগেছিল। আমি নিশ্চিত মিলনই খুন করে পালিয়েছে।’‌

0/Post a Comment/Comments

Previous Post Next Post
Contact for advertising : 9831738670